পলাশে ভুয়া এমবিবিএস ডাক্তার গ্রেপ্তার

আগের সংবাদ

ঘোড়াশালে সাবেক পৌর মেয়রের বাসায় ডাকাতি, মেয়র আহত

পরের সংবাদ

পলাশে শিক্ষার্থীদের মাঝে টিকা কর্মসূচী

নাদিয়া ভূঁইয়া

প্রকাশিত: জানুয়ারি ৯, ২০২২ , ১০:৩০ অপরাহ্ণ

ঘোড়াশালের প্রান আর এফএল পাবলিক স্কুলে ১২ থেকে ১৭ বছর বয়সী স্কুলগামী শিশুদের টিকা দেওয়ার কার্যক্রম শুরু হয়েছে।

এতে অংশগ্রহণ করেছেন চরসিন্দুর বহুমুখী সরকারি উচ্চ বিদ্যালয় ছাত্র-ছাত্রীরা।

১২-১৭ বছর বয়সী শিশুদের করোনাভাইরাসের টিকা দিচ্ছে। শুরুতে দেশের ৩০ লাখ ছেলেমেয়েকে এই টিকা দেয়া হবে। জন্ম-নিবন্ধন সনদের মাধ্যমে শিশুরা এই টিকার জন্য নিবন্ধন করতে পারবে। সরকারের হাতে এই মুহূর্তে ৬০ লাখ ফাইজারের টিকা রয়েছে। দ্বিতীয় ডোজ হাতে রেখে মোট ৩০ লাখ ছেলেমেয়েকে এই টিকা দেওয়া হবে।

করোনার ধাক্কা সামলে স্বাভাবিক শিক্ষা কার্যক্রমে ফিরে যেতেই এ আয়োজন করা হয়। সরকারের এবারের পরিকল্পনা ১২ থেকে ১৭ বছর বয়সী শিক্ষার্থীদের টিকার আওতায় নিয়ে আসা। সেই লক্ষ্যে সোমবার থেকেই টিকা দেওয়া শুরু হচ্ছে।

এই কেন্দ্রে ওয়েটিং রুম, বুথ থেকে শুরু করে তৈরি করা হয়েছে আইসোলেশন রুমও।

স্কুলশিক্ষার্থীদের বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা অনুমোদিত ফাইজার-বায়োএনটেকের টিকা দেওয়া হবে।

প্রথমে মৌখিক ঘোষণা আসলেও এবার টিকা গ্রহণ না করা শিক্ষার্থীদের স্কুল-কলেজে না যাওয়ার লিখিত নির্দেশনা দিয়েছে সরকার।

মাউশির নির্দেশনায় বলা হয়, ১২-১৮ বছর বয়সী সব শিক্ষার্থীকে ১৫ জানুয়ারির মধ্যে কভিড-১৯ প্রতিরোধে টিকা দেওয়ার লক্ষ্যে ইতোমধ্যে মাধ্যমিক ও উচ্চ শিক্ষা অধিদপ্তর থেকে গত ৩০ ডিসেম্বর বিভিন্ন নির্দেশনা দেওয়া হয়।

গত ৬ জানুয়ারি প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সভাপতিত্বে ভার্চ্যুয়াল মন্ত্রিসভা বৈঠক শেষে সচিবালয়ে ব্রিফিংয়ে মন্ত্রিপরিষদ সচিব খন্দকার আনোয়ারুল ইসলাম বলেন, টিকা না নিয়ে শিক্ষার্থীদের স্কুল-কলেজে যাওয়া যাবে না। ১২ বছরের বেশি বয়সের শিক্ষার্থীদের অন্তত এক ডোজ টিকা নিয়ে স্কুল-কলেজে যেতে হবে। শিক্ষা মন্ত্রণালয়কে এ নির্দেশনা দেওয়া হয়েছে।