ঘোড়াশাল পাইলট উচ্চ বিদ্যালয়ে স্কাউট গ্রুপের দীক্ষা 

আগের সংবাদ

সাহিত্য চর্চার প্রত্যয়ে "পলাশ সাহিত্য সংসদ" এর আত্মপ্রকাশ

পরের সংবাদ

দ্রব্যমূল্য বৃদ্ধিতে বিপাকে সাধারণ মানুষ

মোঃ মেজবাহ উদ্দিন ভূঁইয়া 

প্রকাশিত: অক্টোবর ১১, ২০২১ , ৮:১৮ অপরাহ্ণ

মূল্যবৃদ্ধিতে নিম্নআয়ের মানুষ থেকে মধ্যম আয়ের মানুষও সংকটাপন্ন। চাল, ডাল ও তেলের দামের পর তালিকায় নতুন করে যুক্ত হয়েছে পেঁয়াজ, আটা, ময়দা, মুরগি, ডিমসহ আরও কিছু নিত্যপ্রয়োজনীয় পণ্য। বেড়েছে রান্নার গ্যাস, সাবান ও টুথপেস্টের মতো নিত্যব্যবহার্য সামগ্রীর দাম।

সব মিলিয়ে যখন সংসার চালানোই দায় তখন দুঃসংবাদ নিয়ে আসছে বিপণনকারী কোম্পানিগুলো। ভোজ্যতেল ও চিনির দাম আরও বাড়ানোর প্রস্তাব দিয়ে রেখেছে। বাজারে এক কেজি চালের দাম ৬০ টাকা, এক লিটার সয়াবিন তেলের দাম ১৫০ টাকা,ব্রয়লার মুরগী ১৭০ টাকা।

বাজারে দুই সপ্তাহে বেড়েছে পেঁয়াজ, মসুর ডাল, ব্রয়লার মুরগি, ডিম ও সবজির দাম। পেঁয়াজের দাম মোটামুটি দ্বিগুণ হয়ে গেছে। যে দেশি পেঁয়াজ ৪০ টাকা কেজিতে কেনা যেত, তা কিনতে এখন প্রায় ৮০টাকা।

শুধু যে খাদ্যপণ্যের দাম বেড়েছে, তা নয়। বেড়েছে নিত্যব্যবহার্য বিভিন্ন পণ্যের দাম। ডিটারজেন্ট, টুথপেস্ট, নারকেল তেল, শৌচাগারে ব্যবহার করা টিস্যুসহ বিভিন্ন পণ্যের দাম। সুপরিচিত আরেকটি ব্র্যান্ডের এক প্যাকেট টিস্যুর দাম ছিল ১৭ টাকা যা এখন ২০ টাকায় কিনতে হচ্ছে।